ঢাকা২১ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. Echt Geld Casino
  3. test2
  4. অর্থনীতি
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. খেলাধুলা
  9. জাতীয়
  10. তথ্য প্রযুক্তি
  11. দেশজুড়ে
  12. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  13. বাণিজ্য
  14. বিনোদন
  15. মতামত
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এশিয়া-প্যাসিফিক হাউজিং ফোরাম ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড উদ্ভাবনী ক্যাটাগরিতে বিশেষ সম্মাননা পেল বাংলাদেশি প্রকল্প

admin
অক্টোবর ১৬, ২০২৩ ৮:০৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বাগেরহাট প্রতিনিধি
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক উন্নয়ন সংস্থা ‘হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি’ আয়োজিত ‘এশিয়া-প্যাসিফিক হাউজিং ফোরাম ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ডস ২০২৩’- এ ‘সিভিল সোসাইটি হাউজিং ইমপ্যাক্ট’ ক্যাটাগরিতে বিশেষ সম্মাননা পেয়েছে ‘কোডেকের পরিবেশবান্ধব নির্মাণ সামগ্রী ও প্রযুক্তি ব্যবহার বৃদ্ধির উদ্যোগ’। চলতি বছর ৩ হাজার ১শ টির বেশি আবেদন থেকে ৩টি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন দেশের মোট ৬টি প্রকল্প বা সংস্থা পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ থেকে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ)-এর সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্টের আওতায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (কোডেক)’বাস্তবায়িত Promotion of environment friendly construction materials and technologies in coastal region of Bangladesh নামের উপ-প্রকল্পটি ‘সিভিল সোসাইটি হাউজিং ইমপ্যাক্ট’ ক্যাটাগরিতে বিশেষ সম্মাননা পেয়েছে। এবছরের ২৬ ও ২৭ অক্টোবর দক্ষিণ কোরিয়ার সুউন শহরে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করা হবে। সম্প্রতি ‘এশিয়া-প্যাসিফিক হাউজিং ফোরাম’ তাদের ওয়েবসাইটে সম্মাননা প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশের কোডেক ছাড়াও ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, নেপাল, কম্বোডিয়া ও সিঙ্গাপুরের কয়েকটি উদ্যোগের তালিকা রয়েছে।
কোডেক ও পিকেএসএফ‘র তথ্য অনুযায়ী, হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি প্রতি দুবছরে ‘এশিয়া-প্যাসিফিক হাউজিং ফোরাম’ শীর্ষক দ্বিবার্ষিক সম্মেলন আয়োজন করে। এবছর হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি এবং United Nations Economic and Social Commission for Asia and the Pacific একসঙ্গে এই আয়োজন করেছে। বিশ্বব্যাংক, এডিবি, সুইচ এশিয়া-ইইউ, ইউএন হ্যাবিট্যাট, নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনাইটেড নেশন গ্লোবাল কমপ্যাক্ট সহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থা এবারের আয়োজনে সহযোগিতা করেছে। কোডেকের পরিচালক কাজী ওয়াফিক আলম বলেন, বাংলাদেশ সরকারের সহায়তায় বিশ্বব্যাংক ও পিকেএসএফ-এর যৌথ অর্থায়নে দেশের ৩৭টি জেলায় ‘সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি)’টি চলমান রয়েছে। প্রকল্পের আওতায় ক্ষুদ্র উদ্যোগে পরিবেশগতভাবে টেকসই চর্চা রপ্তকরণের জন্য ৬০ হাজারের অধিক ক্ষুদ্র উদ্যোগে বিভিন্ন আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। এর মধ্যে এসইপি-এর ‘উপকূলীয় অঞ্চলে পরিবেশবান্ধব নির্মাণ সামগ্রী ও প্রযুক্তি ব্যবহার বৃদ্ধির উদ্যোগ’ অন্যতম। উপ-প্রকল্পের মাধ্যমে পোড়া ইটের বিকল্প পরিবেশবান্ধব ‘হলো ব্লক’ ও ‘সলিড ব্লক’ তৈরি করার জন্য বাগেরহাট, নোয়াখালী, পটুয়াখালী, ও খুলনা জেলার ২২৬ জন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষন দেওয়া হয়েছে।
পরিবেশবান্ধব নির্মাণ সামগ্রী তৈরি ও সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি সম্প্রসারণ করার জন্য বিভিন্ন আর্থিক, কারিগরি, ও প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করা হয়েছে উদ্যোক্তাদের। প্রকল্পের আওতায় তৈরিকৃত নির্মান সামগ্রীর ব্যবহার বৃদ্ধি ও বাজারজাতকরণ, বর্জ্য ব্যাবস্থাপনা ও হ্রাস, পরিবেশ সংরক্ষনে দক্ষতা বৃদ্ধির প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। উপকূলীয় জলবায়ুর সাথে মানানসই পরিবেশবান্ধব ‘প্রি-ফেব্রিকেটেড কংক্রিট’ নির্মাণ কেন্দ্র এবং টেকসই বিল্ডিং হাব তৈরির মাধ্যমে ক্ষুদ্র-উদ্যোক্তাদের উন্নত প্রযুক্তির সাথে পরিচিত করছে। এতে উদ্যোগক্তাদের উৎপাদন সক্ষমতা এবং পণ্যের গুণগতমান বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের মাঝে দক্ষতা ও সচেতনতা বেড়েছে, উন্নত হচ্ছে তাদের জীবযাত্রার মান। এসকল কর্মকাণ্ডের ফলে পরিবেশ সংরক্ষণের পাশাপাশি জলবায়ু সহিষ্ণু আবাসনে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এসেছে, যার স্বীকৃতিস্বরূপ এই সম্মাননা অর্জন করেছে কোডেক। বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে পিকেএসএফ-এর সহযোগিতায় কোডেক-এর ক্লাইমেট-রেজিলিয়েন্ট হাউজিং প্রজেক্ট বাস্তবায়নের মাধ্যমে জলবায়ু সহিষ্ণু ও পরিবেশবান্ধব কংক্রিট ব্লক ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে উপকূলীয় অঞ্চলে পরিবেশবান্ধব ব্লক ব্যবহার বাড়ছে এবং নিরাপদ ও টেকসই স্থাপনা নির্মিত হচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।