ঢাকা১৯ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. Echt Geld Casino
  3. test2
  4. অর্থনীতি
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. খেলাধুলা
  9. জাতীয়
  10. তথ্য প্রযুক্তি
  11. দেশজুড়ে
  12. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  13. বাণিজ্য
  14. বিনোদন
  15. মতামত

জন্মদিনে সদ্য প্রয়াত মাকে নিয়ে আবেগঘন স্ট্যাটাস সায়নীর

admin
জানুয়ারি ২৮, ২০২৪ ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

জন্মদিন আনন্দের হলেও কলকাতার অভিনেত্রী সায়নীর জন্য ছিল বেদনার। প্রথমবার মাকে ছাড়া জন্মদিন, তাই এই দিনে উদ্‌যাপনের বিষয় ছিল না। মাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেরেছেন মায়ের পারলৌকিক কাজ।

১৫ জানুয়ারি পৌষসংক্রান্তির দিন মাকে হারিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে অভিনয়শিল্পী তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। মাকে হারিয়ে স্বাভাবিকভাবেই ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। আর মায়ের পারলৌকিক কাজের দিনই সায়নীর জন্মদিন। তাই এই দিন বেশি করে মনে পড়ছে তাঁর মাকে। সায়নী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুটি ছবি পোস্ট করেছেন। একটি ছবিতে দেখা গেছে, সায়নী সাদা রঙের পোশাক পরে আছেন। সামনেই মায়ের ছবি, তা মালা দিয়ে সাজানো। শ্রাদ্ধের বিভিন্ন উপকরণ সামনে রাখা রয়েছে। পুরোহিত সেই কাজ সারছেন। অপর ছবিতে মায়ের ছবির সামনে হাতজোড় করে আশীর্বাদ নিতে দেখা গেল অভিনেত্রীকে। এই ছবি পোস্ট করে অভিনেত্রী জানিয়েছেন যে আজই তাঁর জন্মদিন। ৩২ বছরে পা দিলেন তিনি। আর আজকের দিনে তিনি তাঁর মাকে ব্রহ্মলোকের আলোক পথে এগিয়ে দিলেন।
আবেগঘন সায়নী লিখেছেন, ‘মা, আজ থেকে বত্রিশ বছর আগে ঠিক এই দিনে তুমি আমাকে ভূলোকের আলো দেখিয়েছিলে, বত্রিশ বছর পর আজ ঠিক একই দিনে তোমাকে আমি ব্রহ্মলোকের আলোক পথে এগিয়ে দিলাম। তোমার অসীম জ্ঞান, বুদ্ধিমত্তা, সকল জীবের প্রতি পরম স্নেহ, পরোপকারী মন, সরল স্বভাব, অতি সাধারণ জীবনযাপন, পরিবার পরিজনের প্রতি দায়িত্ববোধ, নিরলস কর্ম ও সংসার সাধনা, অপরিসীম সহ্যশক্তি, প্রাণ খুলে হাসার ক্ষমতা, আনন্দে থাকা ও আনন্দে রাখার ক্ষমতা আমাকে মন্ত্রমুগ্ধ করেছে বারবার। বছরের পর বছর শত মানসিক ও শারীরিক কষ্টকে উপেক্ষা করে হাসিমুখে লড়াই করে চলা, সত্যি এক সাধারণ মেয়ের অসাধারণ মা তুমি।’সায়নীর এই পোস্টে তাঁকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি নেটিজেনরা তাঁকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন সায়নীর মা সুদীপা ঘোষ। হাসপাতালে ভর্তি করানোও হয়েছিল। ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু সব চেষ্টা ব্যর্থ করে ১৫ জানুয়ারি প্রয়াত হন তিনি। মায়ের অসুস্থতা নিয়ে প্রকাশ্যে সেভাবে কখনোই কথা বলতে শোনা যায়নি সায়নীকে।

গত পঞ্চায়েত ভোটের সময় শুধু একবার দলের হয়ে প্রচারের কর্মসূচি বাতিল করার কারণ হিসেবে জানিয়েছিলেন মায়ের অসুস্থতার কথা। সেটা ছিল জুলাই মাস। তারপর ৬ মাস কেটে গেছে। সায়নীকে বহু সভাতেও দেখা গিয়েছিল। তবে সম্প্রতি কোনো কর্মসূচিতে যাচ্ছিলেন না। হয়তো মাকে নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। সামনেই লোকসভা ভোট। তৃণমূলের নেত্রী হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ অনেক দায়িত্ব রয়েছে সায়নীর। হয়তো আবার রাজনীতির ময়দানে ব্যস্ত হয়ে পড়তে হবে তাঁকে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।