ঢাকা১৬ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. Echt Geld Casino
  3. test2
  4. অপরাধ
  5. অর্থনীতি
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আরো
  8. এক্সক্লুসিভ
  9. খেলাধুলা
  10. জাতীয়
  11. তথ্য প্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  14. বাণিজ্য
  15. বিনোদন

তফসিল ঘোষণার পর বিএনপি বলছে সংলাপে আপত্তি নেই!

admin
নভেম্বর ১৬, ২০২৩ ৮:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিশেষ প্রতিনিধি

 

বাংলাদেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির সঙ্গে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডোনাল্ড লু’র দেওয়া চিঠির জবাব দিয়েছে বিএনপি। সেখানে তারা স্পষ্ট বলেছে, ” অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে সংলাপে বিএনপির আপত্তি নেই।’ অথচ একমাস আগেও আওয়ামীলীগ থেকে ‘শর্তহীন’ সংলাপে আসার আহ্বান জানানো হয়েছিলো। এরপর একমাস ধরে জালাও পোড়াও আর হামলার রাজনীতি পেরিয়ে নির্বাচন কমিশন যখন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরে এসে দলটি বলছে- সংলাপে তাদের আপত্তি নেই। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা এটাকে ‘টাইম আউট’ বলছেন।

 

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডোনাল্ড লু চিঠি দেয় প্রধান তিনটি রাজনৈতিক দলকে- আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি। সেই চিঠির জবাব বিএনপি বুধবার প্রস্তুত করে। চিঠিতে যুক্তরাষ্ট্রের সংলাপের আহ্বানকে সাধুবাদ জানিয়ে বলা হয়েছে, অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে সংলাপে বিএনপির আপত্তি নেই। তবে দলের মহাসচিবসহ হাজার হাজার নেতাকর্মীকে কারাগারে রেখে সংলাপ করার মতো পরিবেশ আছে কিনা- তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে দলটি।

 

এখন এসে সংলাপের কথা বলাটা কেবল নির্বাচন বানচালের কৌশল মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ‘শর্তহীন’ সংলাপে বসতে বলেছেন, সর্বশেষ নির্বাচন কমিশনও একটি উদ্যোগ নিয়েছিল, সাড়া দেয়ার প্রয়োজনও মনে করেনি বিএনপি হাইকমান্ড। বরং তারা ২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশের নামে  যে ধ্বংসযজ্ঞ চালালো এবং তার পরবর্তীতে এখন পযন্ত যে জ্বালাও পোড়াও চলছে সেটাকেই পথ হিসেবে বেছে নিয়েছে তারা। যদি জনগনকে পাশে না পেলে এধরনের বিধ্বংসী আন্দোলন দিয়ে বিএনপি আসলে সব সম্ভাবনার জায়গা হারাবে।

 

লু কে পাঠানো চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। চিঠির বিষয়বস্তুর বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘চিঠিতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বানকে সাধুবাদ জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে বলা হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশে কার্যত সংলাপের কোনো পরিবেশ নেই। সংকট উত্তরণে এখন সরকারকেই আলোচনার উদ্যোগ নিতে হবে। সরকারকে পরিবেশ তৈরি করতে হবে। এ দায়িত্ব সরকারের।’

 

সংলাপের দায় সরকারের কী করে প্রশ্ন তুলে সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, ‘এই দায় সরকারের নয়। বিএনপির মতো যে দল ধ্বংসযজ্ঞ চালায়, যে দল স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে বারবার পূনর্বাসিত করে সেই দলের শর্ত অনুযায়ী সংলাপ কেনো করতে হবে। সংলাপের কোন পরিবেশ সৃষ্টি করার কথা বলে তারা? পরিবেশ নস্ট কি আওয়ামীলীগ বা সরকার করেছে? পরিবেশ যা নস্ট করার তারাই করেছে।’

 

এদিকে তফসিলের পরেও বৃহস্পতিবার সরকার পতনের এক দফা দাবিতে সহিংস আন্দোলন ত্যাগ করে বিএনপি ভোটে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ স্বাগত জানাবে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা সবাইকে নিয়ে নির্বাচন করতে চাই। তাই এখনো আমরা সবাইকে নির্বাচনে আসার আহ্বান জানাই। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপিও যদি মত পরিবর্তন করে নির্বাচনে আসে তাহলে স্বাগত জানাবে আওয়ামী লীগ। বিএনপিকে বলবো, মত পাল্টে নির্বাচনে অংশ নিন। দরজা খোলা আছে।’

 

বুধবার সন্ধ্যায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। তফসিল অনুযায়ী আগামী ৭ জানুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।