ঢাকা১৫ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. Echt Geld Casino
  3. test2
  4. অপরাধ
  5. অর্থনীতি
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আরো
  8. এক্সক্লুসিভ
  9. খেলাধুলা
  10. জাতীয়
  11. তথ্য প্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  14. বাণিজ্য
  15. বিনোদন

কিশোরগঞ্জের ৭০ হাজার মানুষ বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন ৩০ ঘণ্টা ধরে

admin
মে ২৮, ২০২৪ ৪:১০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দৈ. কি.ডেস্ক : কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের ৪ নম্বর ফিডারের প্রায় ৭ হাজার গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে ৩০ ঘণ্টা ধরে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে শহরের প্রায় ৭০ হাজার মানুষ। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে শুরু হওয়া ঝোড়ো বাতাসে কয়েকটি বড় গাছ বিদ্যুতের লাইনের ওপর পড়ে গেলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এটি স্বাভাবিক হয়নি এখনো।

শহরের গাইটাল শ্রীধরখিলার একাংশ, গাইটাল পাক্কার মাথা, শিক্ষকপল্লি, গাইটাল নামাপাড়া, কলাপাড়া এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, যাঁদের বাসায় বিদ্যুৎ এসেছে, বিশুদ্ধ পানি সংগ্রহের জন্য তাঁদের বাসায় লাইন ধরেছেন পরিচিতরা। দোকানদারেরা বাইরে থেকে আসা সামান্য আলো কিংবা চার্জারের সাহায্যে তাঁদের ব্যবসা পরিচালনা করছেন। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। রাতে যানবাহনে চার্জ দিতে না পারায় দিনে যাত্রী পরিবহন করতে পারেননি অটোরিকশাচালকেরা। এ ছাড়া ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, কলকারখানা, ক্লিনিকগুলোতেও ভোগান্তিতে পড়েছে মানুষ।

মিশু সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল আমিন মুরাদ বলেন, ‘সোমবার সকালে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের ভেতরে একটি গাছ বিদ্যুতের লাইনের ওপর পড়ে যায়। ২৬ ঘণ্টারও অধিক সময় পরে কাঠুরে এনে গাছটির ডালপালা কাটেন বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন। এটা কিছু হইলো? এমন অমানবিক হলে চলে? ৩০ ঘণ্টা হয়ে গেল বিদ্যুৎ নেই।
কিশোরগঞ্জ পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী শামীম আহমেদ বলছেন, ‘কয়েকটি বড় গাছ বিদ্যুতের লাইনের ওপর পড়ে গেছে। এত বড় গাছ যে মঙ্গলবার সকালে কাঠুরে এনে কাটাতে হচ্ছে। গাছ কাটা শেষ হলে লাইন চেক করে বিদ্যুতের সংযোগ চালু করা হবে।’

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।